স্ত্রীর মাথায় কুপে স্বামী জেলে

88

মোঃ নাঈমুজ্জামান নাঈম, কুলিয়ারচর,
কিশোরগঞ্জ, প্রতিনিধি :

প্রায় তিন বছর আগে ইসলামি শরীয়ত মোতাবেক কামরুল হাসান সুমনের সঙ্গে বিয়ে হয় সুরমার। প্রবাস ফেরত সুমন বিবাহের পর থেকে দেশেই অবস্থান করছিলেন। বাড়িতে কৃষি কাজ করেন। সুমন কুলিয়ারচর উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের আলি নগর এলাকার মৃত নুরুজ্জামান আঙ্গুর মিয়ার বড় ছেলে। তার স্ত্রী সুরমা একই উপজেলার পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন সালুয়ার ইউপি সদস্য সিদ্দিকুর রহমানের মেয়ে।

সুরমা অভিযোগ করে বলেন, বিবাহের প্রায় ১ বছর পর হইতে ব্যবসার করিবে বলিয়া
আমার বাবার কাছ থেকে ৫,০০,০০০/- (পাঁচলক্ষ) টাকা যৌতুক আনিয়া দেওয়ার জন্য আমাকে চাপ দিতে থাকে স্বামী (সুমন)।
আমি আমার সুখের কথা চিন্তা করিয়া গত প্রায় ১ বছর পূর্বে আমার বাবার নিকট থেকে ২ কিস্তিতে ৪,০০,০০০/- (চার লক্ষ) টাকা আনিয়া তাকে দিই । গত প্রায় ১ মাস যাবৎ পূনরায় আরো ৫,০০,০০০/- (পাঁচ লক্ষ) টাকা যৌতুক হিসেবে আমার বাবার নিকট থেকে আনিয়া দেওয়ার জন্য জুয়েলের (স্বামীর ছোট ভাই) প্ররোচনায় স্বামী (সুমন) আমাকে বিভিন্ন ভাবে চাপ দিতে থাকে। আমি আমার বাবার নিকট থেকে আর কোন টাকা আনিয়া দিতে পারিব না বলিলে আমার উপর মানসিক নির্যাতন করিতে থাকে।
গত রবিবার ০১ জানুয়ারি ২০২৩ তারিখ বিকাল অনুমান সাড়ে তিনটার সময় আমি আমার স্বামীর বাড়ীতে সাংসারিক কাজ কর্ম করার সময় স্বামী বলে যে, তাহার সংসার করিতে হইলে আমাকে আমার বাবার নিকট থেকে আরোও ৫,০০,০০০/-(পাঁচলক্ষ) টাকা যৌতুক আনিয়া দিতে হবে। আমি আমার বাবার নিকট থেকে আর কোন টাকা পয়সা আনিয়া দিতে পারিব না বলিলে ঘটনাস্থলে উপস্থিত দেবরের (জুয়েল) প্ররোচনায় ও সহায়তায় স্বামী আমার চুলের মুঠি ধরিয়া মারধোর করে। একপর্যায়ে ধাৱালো দা দিয়া কোপ মারিয়া আমার মাথার মাঝখানে আর কাটা রক্তাক্ত জখম করিয়া তুই মর এই কথা বলিয়া আমাকে ঘরের ভিতর ফেলে রেখে তারা চলে যায়।
খবরপেয়ে আমার বাবা স্বামীর বাড়িতে আসিয়া চিকিৎসার জন্য আমাকে কুলিয়ারচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। পরে সোমবার ২ জানুয়ারি, কুলিয়ারচর থানায় একটি অভিযোগ দিই।

এ বিষয়ে অভিযুক্তদের সাথে চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এ ঘটনায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও প. প কর্মকর্তা ডাঃ আদনান আখতার বলেন, আঘাতপ্রাপ্ত রোগীকে ভর্তি করা হয়েছে চিকিৎসা চলছে।

এ ব্যাপারে কুলিয়ারচর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা বলেন, এ ঘটনায় অভিযোগের ভিত্তিতে একটি মামলা হয়েছে। আসামী সুমনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।