বিতর্কিত শিক্ষা সিলেবাস বাতিল নাহলে আন্দোলন চলবেই- সৈয়দ মো.ফয়জুল করীম

146

ছাইদুর রহমান নাঈম, কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি : ডারউইনের বিবর্তন বাদের তীব্র সমালোচনা ও শিক্ষা সিলেবাসে বিতর্কিত বিষয় গুলো বাতিল ও জড়িতদের বিচার করার দাবি জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর শায়খুল হাদীস আল্লামা মাওলানা মুফতি সৈয়দ মোঃ ফয়জুল করীম ( শায়খে চরমোনাই) ।  ৩১ জানুয়ারি মঙ্গলবার বিকালে শহরের সৈয়দ নজরুল ইসলাম চত্বরে কিশোরগঞ্জ জেলা যুব সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই দাবি জানান। অন্যথায় শেষ বিন্দু রক্ত থাকতেও এর বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রহ চালিয়ে যাওয়া হবে বলেও তিনি হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন! । তিনি আরো বলেন, একটি মহল এপার বাংলা ওপার বাংলা এক করার স্বপ্ন দেখেন৷ বাংলাদেশের মানচিত্র নিয়ে যড়যন্ত্র করলে এদেশের দেশ প্রেমীক মানুষ দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিবে ইনশাআল্লাহ। ইসলাম ও মুসলমানদের নিয়ে ছিনিমিনি খেলা সহ্য করা হবেনা৷ আমরা তিন দলেরই দেশ পরিচালনা দেখেছি। তাদের ইতিহাস লুটপাটের ইতিহাস। তাদের দেশকে নতুন করে দেওয়ার কিছু নাই। এবার একটা পরিবর্তন আনতে হবে৷  ইসলামই একমাত্র আদর্শ হতে পারে ভালো কিছু পেতে হলে। সৈয়দ ফয়জুল করীম আরো বলেন, এদেশের যুবকদের নষ্ট রাজনীতির পিছনে জীবনকে বিনষ্ট না করে ইসলামের আদর্শের ছায়াতলে এসে আদর্শিক রাজনীতির আন্দোলনে শরিক হবার আহবান জানান।’  পরে তিনি কিশোরগঞ্জ জেলা যুব আন্দোলনের নতুন কমিটি ঘোষণা করেন। জেলা যুব আন্দোলনের সভাপতি হয়েছেন রবিউল ইসলাম শাহীন এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন এমদাদুল ইসলাম। পরে কমিটির সদস্যদের শপথ পাঠ করান মুফতি সৈয়দ মোঃ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই। ইসলামী যুব আন্দোলন কিশোরগঞ্জ জেলার সভাপতি মাওলানা মু’তাসিম বিল্লাহ মুক্তাকীর
সভাপতিত্বে জেলা যুব সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন, ইসলামী যুবআন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় জয়েন্ট সেক্রেটারি জেনারেল  ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ মারুফ শেখ।  বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ( ময়মনসিংহ বিভাগ) মো. জোবায়ের আহমাদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ, ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ সহ অন্যান্য সকল সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা।