জিপিএ-৫ পাওয়া জমজ তিন ভাইবোনের দায়িত্ব নিলেন রেলমন্ত্রীর সহধর্মিনী শাম্মী

185


প্লাবন শুভ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের বিরামপুরে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পাওয়া ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের জমজ তিন ভাই-বোনের লেখাপড়াসহ সার্বিক দায়িত্ব নিলেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজনের সহধর্মিনী শাম্মী আক্তার মনি।
ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের জমজ তিন ভাই-বোন লাসার সৌরভ মুর্মু, মেরি মৌমিতা মুর্মু ও মরতা জেনিভিয়া মুর্মু উপজেলার পলিপ্রয়াগপুর ইউনিয়নের চন্ডিপুর গ্রামের জোহানেশ মুর্মুর ছেলে মেয়ে।
সম্প্রতি হওয়া এসএসসি পরীক্ষায় ওই তিন ভাই-বোন জিপিএ-৫ অর্জনের বিষয়টি সামাজিক ও গণমাধ্যমে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ে। আলোচিত এই ঘটনাটি জানতে পেরে গত শনিবার (৫ আগস্ট) ওই তিন ভাইবোনের বাড়িতে যান শাম্মী আক্তার মনি।
শাম্মী আক্তার মনি ওই তিন ভাইবোনের সাথে সাক্ষাৎ করে তাদেরকে শুভেচ্ছা জানানোসহ উপহার ও নগদ অর্থ প্রদান করেন।
এসময় বিরামপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মঞ্জুরুল ইসলাম, সমাজসেবক জাহিদুল ইসলাম মিলন, প্রভাষক কালী প্রসন্ন সরকার, মো. মোসলেম উদ্দিন, ইমরান হোসেন, মাহাবুবুল আলম নেনার, ফুলবাড়ী প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক প্লাবন শুভ, আমরা করব জয় সমাজ কল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মো. সোহেল রানা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজনের সহধর্মিনী শাম্মী আক্তার মনি বলেন, আমার বাবার বাড়ি এলাকায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের জমজ তিন ভাই-বোন একসাথে পরীক্ষায় জিপিএ-৫ অর্জন করেছে এমন খবর পেয়ে আমি তাদের বাড়িতে হাজির হই। তারা এতো প্রত্যন্ত গ্রামে থেকেও পুরো উপজেলাবাসীর মুখ উজ্জল করেছে। তারা এ উপজেলার গর্ব। আমি তাদের পাশে থাকার আশ^াস দিয়েছি। তাদের মধ্যে একভাই ইঞ্জিনিয়ারিং এবং দুই বোন ডাক্তারি পড়তে চায়। আমি তাদের লেখাপড়া, চিকিৎসা ব্যবস্থাসহ সার্বিক দায়িত্ব নিয়েছি।
উল্লেখ্য, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের জমজ তিন ভাই-বোন লাসার সৌরভ মুর্মু, মেরি মৌমিতা মুর্মু ও মরতা জেনিভিয়া মুর্মু চলতি বছর বিরামপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে তিনজনই জিপিএ-৫ অর্জন করেন। তাদের বাবা জোহানেস মুর্মু একটি বেসরকারি সংস্থায় চাকরি করেন এবং মা গৃহিনী। পরিবারের অর্থিক অনটন থাকা সত্ত্বেও তারা থেমে যায়নি। অদম্য শক্তিতে তারা এগিয়ে আজ দেশব্যাপী আলোচিত হয়।