তারাকান্দায় নিখোঁজের ৩দিন পর বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার: গ্রেফতার ৩

45
লক্ষীপুরের এক ডোবা থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

তারাকান্দা ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃময়মনসিংহের তারাকান্দায় নিখোঁজের ৩ দিনপর জনৈক নলদিঘী গ্রামের মজিবর রহমানের পুকুরে মিলেছে কৃষকের লাশ।ভিকটিম কৃষক নলদিঘী পূর্বপাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র লাল মিয়া (৫০)।এই ঘটনায় তারাকান্দা থানা পুলিশ ৩জনকে গ্রেফতার করেছে। ১ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) ঘটনাটি ঘটেছে তারাকান্দা উপজেলার বানিহালা ইউনিয়নের নলদিঘী পূর্বপাড়া গ্রামে।

এ বিষয়ে ভিকটিমের ছেলে রাসেল মিয়া(২১) বলেন,গত ২৯ আগষ্ট (মঙ্গলবার) সন্ধ্যা ৮ টার সময় আমার বাবা বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান।এরপর থেকে কোন ভাবেই তার সাথে আমরা যোগাযোগ করতে পারিনি। এদিকে আমরা উনার মোবাইলে বারবার ফোন করতে থাকি।একপর্যায়ে ৩০ আগষ্ট (বুধবার) দুপুর ১২.৩৪ মিনিটে উনার মোবাইলে ফোন করলে অপরপ্রান্তে কেউ ফোন ধরে জানান,আমার বাবাকে অপহরণ করা হয়েছে।তাকে ছাড়িয়ে নিতে এসময় ৩০ লক্ষ টাকা দাবি করে সেই ব্যাক্তি।
এ বিষয়ে তারাকান্দা থানা পুলিশের এসআই ও মামলার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রায়হানুর রহমান জানান, তারাকান্দা থানা অফিসার ইনচার্জ আবুল খায়ের স্যারের নেতৃত্বে নিখোঁজ জিডির অনুসন্ধান করতে গিয়ে অপহরণকারীদের একজন নলদিঘী পূর্বপাড়া গ্রামের সোহেল মিয়া (৩২)কে গ্রেফতার করা হয়।অত:পর সোহেল মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে জানায় অপহরণের পর ভিকটিম লাল মিয়াকে হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলা হয়েছে। এরপর সোহেলের দেয়া তথ্যমতে হত্যাকান্ডে জড়িত অপর দুই আসামি নলদিঘী গ্রামের আ: জব্বার খাঁনের পুত্র শাহীন খাঁন(৪৫) ও আলী আকবরের পুত্র আ:বারেককে গ্রেফতার করা হয়।তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের ১ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার)সকাল ৬ টায় পুকুর থেকে ভিকটিমের লাশ উদ্ধার করা হয়। আসামিদের নিয়ে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এ বিষয়ে তারাকান্দা থানা অফিসার ইনচার্জ আবুল খায়ের জানান,ঘটনার সাথে জড়িত আসামিদের গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলা রজুর প্রক্রিয়া চলছে। ভিকটিমের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।