ঠাকুরগাঁওয়ে জঙ্গী সংগঠনের সক্রিয় সদস্য আনসার আল ইসলাম সহ ৪ সদস্য গ্রেফতার

53


মোঃ মজিবর রহমান শেখ,ঠাকুরগাঁও সদর উপজলোর মোহাম্মদপুরে র‌্যাবের অভিযানে আনসার আল ইসলাম নামে জঙ্গী সংগঠনরে সক্রয়ি সদস্য মো: ইয়াশীন আলী (১৭) কে গ্রফেতার করা হয়। পরে তার দায়ের তথ্য মতে আরও ৩ জনকে গ্রফেতার করে র‌্যাব-১৩ এর একটি টিম । শনবিার সিপিসি-২ নীলফামারী, রংপুর র‌্যাব-১৩ এর ডিএডি মো: হাফজিুর রহমান বাদী হয়ে মো: ইয়াশীন আলী সহ ৮ জনরে নাম উল্লখে করে ৮/৯ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় এ মামলাটি দায়রে করনে। মামলার বিবরণে জানা যায়, র‌্যাব-১৩ এর ডিএডি মো: হাফজিুর রহমানরে নতেৃত্বে একটি টিম ঠাকুরগাঁওয়ে অবস্থান করছিল। এ সময় গোপন সংবাদরে ভিত্তিতে টিমটি জানতে পারে ঠাকুরগাঁও সদর উপজলোর মোহাম্মদপুর ইউনয়িনরে র্পূবপাড়ার মো: মহসীন আলীর ছলেে মো: ইয়াশীন আলী (১৭) এর বাড়িতে জঙ্গিরা নাশকতার পরিকল্পনার উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠক করছনে। র্উদ্ধতন র্কতৃপক্ষের অনুমতি সাপক্ষে র‌্যাব-১৩ এর টিমটি ঘটনাস্থলে পৌছালে বৈঠকের মানুষজন পালিয়ে যায়। এ সময় ইয়াশীন আলীকে গ্রফেতার করা হয়। জজ্ঞিাসাবাদে সে জঙ্গী সংগঠন আনসার আল ইসলামরে সক্রয়ি সদস্য বলে স্বীকার করেন। এছাড়াও সে স্বীকার করেন যে র্স্মাট ফোনরে মাধ্যমে টেলিগ্রাম এ্যাপস ব্যবহার করে “আনসার ঘাজোয়াতুল হন্দি, আনসার আল ইসলাম টিম বাংলা দ্যা ইসলাম বাঙালী রজেমিন্টে” সংগঠনরে উগ্র ও জঙ্গীবাদী তথ্যাবলী সহ সামাজকি যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার প্রচারনা করে থাকেন । এ সময় বশে কয়কেটি জঙ্গী সংশ্লষ্টি বই উদ্ধার করা হয়।
র‌্যাব-১৩ টিমের সদস্যরা গ্রফেতারকৃত ইয়াশীন আলীকে ব্যাপক জজ্ঞিাসাবাদে তার দেওয়া তথ্য মতে এবং টেলিগ্রাম এ্যাপস যাচাই করে তথ্য প্রযুক্তরি সহায়তায় পলাতক আসামীদরে মধ্যে দিনাজপুর জেলার বিরল উপজেলার কোতয়ালী থানার উপশহর গ্রামরে মো: করোমত আলীর ছেলে মো: মুনতাসরি বিললাহ (৩৬) কে গ্রফেতার করা হয়। পরে রাতে এ ঘটনায় জড়তি মো: আব্দুল মালকে (৩৩) ও সাব্বির হোসনে (২০) কওে গ্রফেতার করা হয়।
গ্রফেতারকৃত ৪ জন ছাড়াও এ মামলায় অন্যান্য আসামীরা হলনে, ঠাকুরগাঁও সদর উপজলোর মোহাম্মদপুর গ্রামরে আব্দুল কুদ্দুসরে ছেলে মঞ্জুর আলম (২৪), একই গ্রামরে মো: ফারুকরে ছেলে মারুফ ইসলাম (২১), আনছিুর রহমানরে ছেলে সাজিদ ইসলাম (১৮), পাশ্বর্বতী মাতৃগাঁও গ্রামের আব্দুর রশিদদের ছেলে আমীর হামজা (১৯) সহ অজ্ঞাতনামা ৮/৯ জন। তাদরে বিরুদ্ধে সন্ত্রাস বিরোধী আইনে- পরপর যোগসাজসে সংঘবদ্ধভাবে দেশের বিভিন্ন এলাকায় রাষ্ট্ররে বিরুদ্ধে ধ্বংসাত্বক র্কমকান্ডরে ষড়যন্ত্ররে অপরাধ, সংঘটনরে চেষ্টা ও উগ্রবাদী র্কমপরকিল্পনা করত: সন্ত্রাসী র্কমকান্ড ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অপরাধরে কথা উল্লখে করা মামলা দায়ের ।