ঈশ্বরগঞ্জে নৌকার পার্থীকে হাজারো গাড়ির শোডাউনে বরণ

22

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি-

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৮ ঈশ্বরগঞ্জ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুছ ছাত্তারকে হাজার হাজার গাড়ি নিয়ে শোডাউনের মধ্যে দিয়ে বরণ করে নেন দলীয় নেতাকর্মীরা। বুধবার বিকেলে ঢাকা থেকে আসার পথে ত্রিশাল উপজেলার বালিপাড়া এলাকা থেকে তাকে বরণ করা হয়। এসময় বিভিন্ন স্লোগানের মাধ্যমে ও ফুল ছিটিয়ে তাকে স্বাগত জানান উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। 
গাড়ি শোভাযাত্রার পর ঐতিহ্যবাহী জামিয়া গাফুরিয়া দারুছ্ছুন্নাহ ইসলামপুর মাদ্রাসায় মিলাদ মাহফিল ও দোয়া শেষে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ও প্রয়াত আওয়ামী লীগের নেতাদের কবর জিয়ারত করেন। পরে ঈশ্বরগঞ্জ স্মৃতিসৌধে উপস্থিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে নেতাকর্মীদের নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্যে দিয়ে শেষ হয়। 
বরন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাজী রফিকুল ইসলাম বুলবুল, রফিকুল ইসলাম ভিপি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাফির উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাফায়েত হোসেন ভূঁইয়া, হারুন অর-রশিদ, দপ্তর সম্পাদক আবুল কালাম, সাবেক মেয়র ও ঈশ্বরগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, উপজেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ মতিউর রহমান মতি, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম মাসুদ, সহদপ্তর সম্পাদক রুহুল আমীন রাহুল, ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের সদস্য ও ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহবুবুর রহমান, আঠারবাড়ি ইউপির চেয়ারম্যান জুবের আলম কবীর রূপক, জাটিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান শামছুল হক ঝন্টু, পৌর যুবলীগের সভাপতি আশরাফুল আলম সুমন, উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল ইসলাম জুয়েল, দেলোয়ার জাহান মামুন, শ্রমিক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব কাজী জিয়াউল হক শুভ্র ও  উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রানা আহমেদসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীবৃন্দ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুছ ছাত্তার  বলেন, আপনাদের সমর্থনে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানের কারিগর জননেত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমাকে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন দিয়েছেন। এজন্য প্রিয় নেত্রীর ভালোবাসার কাছে আমি চির কৃতজ্ঞ। জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন তা এ আসনের সাধারণ মানুষ ও দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে একসাথে সেই দায়িত্ব পালন করবো। শতভাগ ভোটার উপস্থিতির মাধ্যমে নৌকাকে বিপুল ভোটে জয়লাভ করানোর জন্য তিনি দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।