ইটনায় প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত-১ আহত- ৪

7

খায়রুল ইসলাম :

কিশোরগঞ্জের ইটনায় জমি নিয়ে বিরোধে ছানু মিয়া (৬০) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে ।

ঘটনাটি ঘটেছে আজ শুক্রবার সকালে ইটনা উপজেলার বাদলা ইউনিয়নের থানেশ্বর গ্রামে।

নিহত ছানু মিয়া থানেশ্বর গ্রামের মৃত পাগারদি মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন নিহত ছানু মিয়ার ছেলে লিটন, মেয়ে সোমা,রোমা ও ভাতিজা বাবুল।

এলাকাবাসী জানান, পৃর্ব শএুতার জেরে আজ শুক্রবার সকালে জিনু মিয়া গংরা।

পরিকল্পিতভাবে চানু মিয়ার উপর হামলা চালিয়ে তাঁকে হত্যা করে ।
থানেশ্বর এলাকার মুক্তু ভুইয়ার পুএ জিনু ভুঁইয়ার নেতৃত্ব নীলু মিয়া, বিপ্লব মিয়া, সেলিম মিয়া,জাকারিয়া মিয়া,দিদার মিয়া,নীলু মিয়ার পুএ (ঢাকা থেকে আসা), আতিকুল মিয়া,মুকিতুল মিয়া,মহিউদ্দিন, রওশন গংরা । নির্ভরযোগ্য সুএ জানান, জিনু মিয়া গংরা
তাদের ঢাকাস্থ মোহাম্মদপুর রায়েবাজার এলাকার আত্বীয়দের খবর দিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে পিক-আপ দিয়ে বাড়িতে এনে সকালে এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ছানু মিয়ার সঙ্গে জমি নিয়ে প্রতিবেশি মুক্তু মিয়ার বিরোধ চলে আসছে। এর জের ধরে শুক্রবার সকালে পরিকল্পিত ভাবে ছানু মিয়াকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। তাকে রক্ষা করতে গিয়ে আহত হন তার ছেলে লিটন, মেয়ে সোমা ও ভাতিজা বাবুল।

গুরুতর আহত ছানু মিয়াকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। আহত লিটনকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরন করা হয়েছে। বাবুলকে শহীদ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। অন্যনদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ইটনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাকির রব্বানী ঘটনার সত্যতা
নিশ্চিত করে জানান, অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশি অভিযান চলছে।
কিশোরগঞ্জ মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ বলেন, সুরতহাল প্রতিবেদন করার জন্য মডেল থানার পুলিশ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
কিশোরগঞ্জ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ বলেন,ঘটনাস্থলে থানা পুলিশসহ অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে পাঠানো হয়েছে। এলাকায় পরিবেশ পুলিশের নিয়ন্ত্রণে ও শান্ত অবস্থায় আছে।