বাজিতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৫০ শয্যা থেকে ১০০ শয্যা করার এলাকাবাসির দাবি

9

বাজিতপুর (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি; কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি ৩১ শয্যা হাসপাতাল হতে ৫০ শয্যা ২০১৬ সালের ১৩ এপ্রিলে উন্নিত হয়েছে। তখন ৮ কোটি ৪৯ লক্ষ ১৬৬ টাকা ব্যয়ে হাসপাতালটি হয়। এখন এলাকাবাসির দাবি এ ৫০ শয্যা হাসপাতালটি ১০০ শয্যায় রুপান্তর করা একান্ত প্রয়োজন। এ হাসপাতালে নানা সমস্যা রয়েছে। এর মধ্যে ইপিআই সেকশান, ডাক্তারদের বাসা থাকার ব্যবসা অনুপযোগী, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের বাসা গুলো কক্ষের মধ্যে অচলাবস্তা, যেখানে মেশিন ষ্টাট করা হয় সেখানে ছাদ দিয়ে পানি পড়া, হাসপাতালের বাথরুম অনুপযোগী সহ নানা সমস্যা রয়েছে। আউটডোরে প্রতিদিন ৮শত থেকে ৯শত রোগী দেখতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে। ইমারজিন্সিতে ৮০ থেকে ৯০ জন রোগী ভর্তি করতে গিয়ে সংকুলান হচ্ছে না। রোগীরা জানান, এ হাসপাতালে বাহির থেকে কোনো ঔষধ কিনে আনতে হয় না। ডাক্তারদের প্রেসক্রিপশনের মাধ্যমে হাসপাতাল থেকে ঔষধ দেয় ডাক্তাররা। প্রসূতি বিভাগে ডাক্তারগণ ভালো চিকিৎসা দিচ্ছেন। বাজিতপুর সরকারি হাসপাতালের পঃপঃ ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার সিনথিয়া তাসমিন এ প্রতিবেদককে বলেন, যদি হাসপাতালের নানা সমস্যা গুলি সমাধান করা যায়। তা হলে আরও পরিবেশ সুন্দর হবে বলে উল্লেখ করেন।