সঙ্গীতকে ভালোবেসে নিজেকে সঁপে দিতে চান-সঙ্গীত শিল্পী রাইসা খান

140

আব্দুল কাদির,নিজেস্ব প্রতিবেদকঃ যাদুকরী কন্ঠের অধিকারী রাইসা খান।জন্ম নিয়েছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান খান শহিদ এর পরিবারে। চতুর্থ শ্রেণীতে থাকা কালীন বাবাই প্রথম হারমোনিয়াম এনে দিয়েছিল রাইসাকে এবং তখন থেকেই ওস্তাদ প্রয়াত কাজী শহীদুল্লাহ্ কায়ছার এর কাছে হাতে খড়ি শিখেছেন আধুনিক ও নজরুল সংগীত, এর পর শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের চর্চাও করেছেন ওস্তাদ সুর বন্ধু অশোক চৌধুরীর কাছে।পরিবার এবং ওস্তাদ সুর বন্ধু অশোক চৌধুরীর অনুপ্রেরণাতেই বিভিন্ন কনসার্ট আর মঞ্চে গাইতে আরম্ভ করেন রাইসা এবং এ সময় একটি অভাবনীয় ঘটনা ঘটে!! ঠিক ৯ম/১০ম শ্রেণীতে থাকা কালীন বিভিন্ন কনসার্টে,স্টেজ শো,করপোরেট শোতে গায়িকা হিসেবে ডাক পেতে থাকেন এবং প্রায় নিয়মিতই হয়ে পড়েন।রাইসা অন্যান্য গান গাওয়ার পাশাপাশি নিজের মৌলিক গান ও করেছেন।সম্প্রতি ১৪ ফেব্রুয়ারী ভালবাসা দিবস উপলক্ষে তার “একটু দেখা” শিরোনামে একটি গান সিডি চয়েস মিউজিক থেকে মুক্তি পায়।যা প্রথম দিন থেকেই সাফল্যের চূড়া ছুঁয়েছে। নিয়মিত রেওয়াজ, স্টেজ শো,টিভি শো করা সহ নিজস্ব গানের সংখ্যাকে বাড়াতে চান রাইসা।রাইসা বলেন “আমি বিশ্বাস করি প্রত্যেক শিল্পীর শ্রোতা কিছু আলাদা এবং বিশেষ কারণে তৈরি হয়,সেই বিশেষ কারণ গুলো নিজের মধ্যে ধারণ করে শ্রোতাদের মনের মনিকোঠায় জায়গা পেতে চাই”। বাংলাদেশের জনপ্রিয় দের মধ্যে রুনা লায়লা, শাহনাজ রহমতুল্লাহ, সাবিনা ইয়াসমিন,মিতালি মুখার্জি, কনক চাঁপা,অন্যদিকে ওপাড় বাংলার লতা মুঙ্গেশকর,আশা ভোসলে,সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, শ্রেয়া ঘোষাল তাকে অনুপ্রাণিত করে। ওনাদের গান গুলো কন্ঠে ধারণ করতে, গাইতে ভালোবাসেন রাইসা।তবে নিজের গান দিয়ে নিজেকে আলাদা এবং বিশেষায়িত করতে চান রাইসা।রাইসা বলেন ” আমি নিজেকে আজীবন সংগীতের শিক্ষার্থী হিসেবেই ভাবতে চাই”।এখন পর্যন্ত যেখানেই গান পরিবেশন করেছেন শ্রোতারা তার যাদুকরী কন্ঠের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন।রাইসার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হচ্ছে সংগীতের জগৎ এ বিচরণ করে শীর্ষ স্থানে পৌচ্ছানো । রাইসার শেষ কথা হচ্ছে, সঙ্গীতকে ভালোবেসে অন্তর দিয়ে গাইতে হবে। শ্রোতাদের সন্তুষ্ট করার মধ্যেই সুপ্ত আছে একজন সঙ্গীত শিল্পীর প্রকৃত সত্ত্বা। তা সাধন ভজনের মাধ্যমে অর্জন করতে হয় বলে রাইসার বিশ্বাস ।গান নিয়ে নতুন কোনো তথ্য জানতে চাইলে রাইসা বলেন:অনেক গুলো কাজ তৈরি হয়ে আছে সকলের সামনে আসতে যাচ্ছে শীঘ্রই ,আর কিছু কিছু গানের কাজ আধাআধি হয়ে আছে এখন শুধু সঠিক সময় আর সুযোগ এর অপেক্ষা।