তথ্যমন্ত্রীর পক্ষে রাঙ্গুনিয়ার পোমরার ৭’শ পরিবার পেল খাদ্য সহায়তা

46

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধিঃ তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি’র পক্ষ থেকে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পোমরা ইউনিয়নের ৭’শ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। পোমরা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ফজলুল কবির গিয়াসু ও তার ছোট ভাই উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এমরুল করিম রাশেদ ব্যক্তিগত উদ্যোগে তথ্যমন্ত্রীর পক্ষে এসব খাদ্য সহায়তা দেন। ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ ও তথ্যমন্ত্রীর পারিবারিক প্রতিষ্ঠান এনএনকে ফাউন্ডেশনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দের সার্বিক তত্ত্বাবধানে প্রকৃত দুস্থ ও অসহায় পরিবারকে চিহ্নিত করে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে এসব খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হয়। এরআগে সোমবার (১১ মে) পোমরা জামেয়া নঈমীয়া তৈয়বিয়া ফাযিল মাদ্রাসার হলরুমে কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পোমরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ছৈয়দুল আলম তালুকদার। প্রধান অতিথি ছিলেন পোমরা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ফজলুল কবির গিয়াসু। সামাজিক সংগঠন আঞ্জুমান-এ ছওয়াদে আযমের সিনিয়র সহ সভাপতি এরশাদুল হকের সঞ্চালনায় বক্তব দেন পোমরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম, এনএনকে ফাউন্ডেশনের পোমরা ইউনিয়নের আহবায়ক আবুল ছৈয়দ মেম্বার, সদস্য সচিব শিক্ষক মুছলেম উদ্দিন, আহম্মদ আলী নঈমী, গোচরা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আমির হামজা, আছিফুল করিম সাব্বু প্রমুখ। এসময় করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি কামনায় মোনাজাতের মাধ্যমে বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন নঈম উদ্দিন ভান্ডারী। শেষে স্থানীয় বেশকিছু খেটে খাওয়া পরিবারের নারী-পুরুষদের মাঝে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে খাদ্য সহায়তা তুলে দেওয়া হয়। এমরুল করিম রাশেদ জানায়, তথ্যমন্ত্রীর নির্দেশ দিয়েছেন এই দুর্দিনে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাড়াতে। তারই নির্দেশে উনার পক্ষ থেকে এসব খাদ্য সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে পারিবারিকভাবে আঞ্জুমান এ ছওয়াদে আযমের মাধ্যমে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছিল। এবার ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের খেটে খাওয়া ৭’শ পরিবারে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়। পর্যায়ক্রমে আরও মানুষকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।