আওয়ামী লীগ শান্তির ঘর পুড়ায় না, বানিয়ে দেয়- সাদেক কুরাইশী

32

মোঃ মজিবর রহমান শেখ ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি,,বিএনপি, জামাতের মতো আওয়ামী লীগ শান্তির ঘর আগুনে জ্বালিয়ে পুড়ায় না। আওয়ামী লীগ গরীব মানুষের বন্ধু, তাদের সুখের ঘর বানিয়ে দেয়। গরীব মেহনতী মানুষের মাথা গোজার ঠাই করে দেয়। আওয়ামীলীগ কোন মানুষের জীবন, জীবনের যত অর্জন সমস্তকিছু আগুনে ঝলসে দিয়ে রাস্তায় নামায়না বলেছেন ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুহা: সাদেক কুরাইশী। ৮ নভেম্বর শুক্রবার সকালে সদর উপজেলার মোহম্মদপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের আরাজী পশ্তমপুর এলাকায় উক্ত ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত একটি গুচ্ছ গ্রামে গৃহহীন থেকে যারা ঘর পেয়েছেন তাদের কাছে ঘরের চাবি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আওয়ামীলীগ নেতা মুহা: সাদেক কুরাইশী বলেন, আওয়ামীলীগ একটি ঐতিহ্যবাহী সংগঠন, স্বাধীনতার পক্ষের সংগঠন। এ সংগঠনের মহানায়ক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান। তারই আদর্শে ও স্বপ্নের পথে এ সংগঠন হেঁটেছে বলেই বিশ্ব ব্যপী এ সংগঠনের আজ এতো নাম ডাক। ‍এ সুনাম একদিনেই হয়নি। অনেক ত্যাগী গরীব মেহনতী মানুষের মেধা শ্রম ও ভালোবাসার বিনিময়ে হয়েছে। তাই বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মেহনতী মানুষের সম্মান করে। তাদের সুখে দুখে পাশে থাকে। তিনি আরও বলেন, এ দেশের মেহনতি মানুষ এ দেশের গর্ব। এ দেশের সম্মান। তাই এ আওমীলীগ সরকার তাদের স্বার্থেই নি:স্বার্থ ভাবে কাজ করতে চায়। এ দেশের উন্নয়ননের কথা আমি বলবোনা। কারন এ দেশের উন্নয়ন কোন গল্প নয়, দৃশ্যমান। চোখের সামনে এ উন্নয়ন দেখা যায়। একটা সময় ছিলো যখন বিএনপি সরকার ছিলো তখন এ দেশের কৃষক সার পেতোনা। সারের জন্য লাইন দিয়ে দাড়াতে হতো। কিন্তু এই আওয়ামীীগ সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। এখন আর সারের জন্য কোন লাইন দাড়াতে হয়না।সহজেই কৃষক সার পায় দেশের সকল মানুষের জন্য ফসল উৎপাদন করে। বিদ্যুতের জন্য এ সরকার বাঙালীর মনে স্বর্নাক্ষরে লিখা থাকবে। কারন একটা সয়য় বিদ্যুতের জন্য বিদ্যুৎ কতৃপক্ষের কাছে মানুষ অনেক সময় দিতো। আর এখন বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ বিদ্যুৎ দেওয়ার জন্য বাড়ি বাড়ি ঘুরে। রাস্তার ঘাট, ব্রীজ কালভার্ট, শিক্ষার সুযোগ সহ দেশের সব সেক্টরে বাংলাদেশ আজ যে উন্নয়ন করেছে তা দৃশ্যমান। এই হলো আওয়ামীলীগ সরকারের দৃশ্যমান উন্নয়ন। উপস্থিত সুবিধাভোগীদের উদ্দেশ্যে মুহা: সাদেক কুরাইশী বলেন, আজ যারা ঘর পেয়েছেন তারা সবাই একসাথে মিলেমিশে থাকবেন। কোন রকম ঝগড়া ফ্যাসাদ করবেন না। আপনাদের যে কোন সমস্যা স্থানীয় প্রতিনিধিকে জানাবেন। এ সময় তিনি সকল প্রকার বিপদ আপদে সে সব মানুষের পাশে দাড়াবেন বলে জানিয়েছেন। পরে প্রায় ৫০ শতক সরকারি খাস জমির উপর ১৬ টি সুবিধাভোগী পরিবার প্রধানকে চাবি হস্তান্তর করেন মুহাম্মদ সাদেক কুরাইশী এবং শেষে গুচ্ছ গ্রামটির প্রত্যেকটি ঘর পরিদর্শন করেন তিনি। এ সময় ১১ নং মোহম্মদপুর ইউনিন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: সোহাগ হোসেনের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়নয় আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল কাদেরের সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো: মোশারুল ইসলাম সরকার, সুবিধাভোগী প্রতিবন্ধী বৃদ্ধ আক্কাস আলী, মো: জহিরুল ইসলাম ও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মহিলা। এ সময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামলীগ সহ আওয়ামীলীগের অঙ্গসংগঠেনের নেতৃবৃন্দ।