নান্দাইলে ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় পারাপার

44

নিজস্ব প্রতিবেদক : ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলার কালিগঞ্জ বাজার এলাকায় নরসুন্দা নদীর উপর সেতু না থাকায় দু‘পাশের বিশটি গ্রামের প্রায় ত্রিশ হাজার মানুষ দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। প্রতিদিন বাজারের ফেরিঘাটে নৌকা দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে এলাকার কৃষক, ব্যবসায়ী, স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। বর্ষাকালে নৌকা দিয়ে নদী পারাপার হতে গিয়ে প্রায়শই ঘটছে প্রাণহানীর মত ঘটনা। এলাকাবাসীর র্দীঘদিনের দাবির পরও নদীতে কোন সেতু নির্মাণ করা হয়নি।

সরজমিনে দেখা গেছে, উপজেলা সদর থেকে পূর্বÑদক্ষিণে ১৭ কিলোমিটার দূরে রাজগাতী ইউনিয়নে কালিগঞ্জ বাজারটি অবস্থিত। আশপাশের ৫টি ইউনিয়নের সবচেয়ে বড় বাজার এটি। বাজারের দক্ষিণ পাশ দিয়ে বয়ে গেছে নরসুন্দা নদী। নদীর দুই পাশে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, রেল স্টেশন, ব্যাংক সহ প্রায় বিশটি গ্রাম রয়েছে। নদীর উত্তর পাশে রয়েছে পাকা সড়ক। যা ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহা সড়কের মিশেছে। বর্ষাকালে ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় নদী পারাপার হলেও শুকনো মৌসুমে নাব্য সংকটের কারণে এলাকাবাসীর উদ্যোগে তৈরি বাঁশের সাঁকোই একমাত্র ভরসা হয়ে দাঁড়ায়। ভরা নদীতে কখনো কখনো নৌকা ডুবি ঘটনাও ঘটে। আর এতে প্রাণহানীর ঘটনাও ঘটে। বিশেষ করে কালিগঞ্জের বাজারের দিন ছোট ফেরি নৌকাটি অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই করে চলাচল করতে দেখা যায়। এখানে একটি সেতু নির্মানের দাবী এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের ।

রাজগাতি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন বলেন, এই নদীতে কালিগঞ্জ বাজার ফেরি ঘাটে নৌকা দিয়ে ঝুঁকি নিয়েই স্থানীয় বাসিন্দারা নদী পারাপার হয়। মালামাল পরিবহনেও এলাকাবাসীকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। জনগনের চলাচলের সুবিধার্থে এখানে একটি সেতু নির্মাণ প্রয়োজন। শুনেছি সেতুর জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কালিগঞ্জ বাজার সেতু নির্মাণ হলে রাজগাতী ও মুশুলী ইউনিয়নের ৩০/৩৫ হাজার মানুষের চলাচলের দুর্ভোগ লাগব হবে। নান্দাইল উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) প্রকৌশলী আবুল খায়ের মিয়া বলেন, কালিগঞ্জ ফেরিঘাটটিতে নরসুন্দা নদীর ওপর একটি সেতু প্রয়োজন। আশা করছি দ্রুত এখানে সেতু নির্মাণ করা সম্ভব হবে।ইতিমধ্যে মাটি পরীক্ষার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আশা করছি কিছুদিনের মধ্যেই টেন্ডার আহবান করা হবে।