সমাজে মাদক সমস্যা ও তার প্রতিকার

435

রুহুল আমিন,আত্রাই,নওগাঁ থেকে: সমাজ প্রতিটি মানুষের জন্য একটি সার্বজনীন প্রতিষ্ঠান। কিন্তু বর্তমান সমাজে মাদক ব্যাপকভাবে প্রভাব বিস্তার করছে যার প্রভাব অত্যন্ত ভয়াবহ। মাদক সমস্যার বিভিন্ন দিক রয়েছে যেমন সামাজিক,পারিবারিক,অর্থনৈতিক ও রাষ্ট্রীয় । প্রতিটি মানুষই তার পরিবারের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ অথচ একজন মানুষ যখন মাদকে আসক্ত হয়ে পড়ে তখন তার পরিবারকে বিভিন্ন সমস্যার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়।সে পারিবারিক বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করে ফলে পরিবারের মাঝে অশান্তি বিরাজ করে,আবার তাদের মাঝে আতঙ্ক কাজ করতে থাকে।সে সমাজের সবার কাছে ঘৃণার পাত্র হয় ,অধিকাংশ মানুষ তাকে হেয় করে দেখে। এর জন্য শুধু মাদকসক্ত ব্যক্তি মানসিক হীনমন্যতায় ভোগে না তার পরিবারের প্রত্যেকটি সদস্যকে এর শিকার হতে হয়। একজন মানুষ যখন মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে তখন তার মাদকদ্রব্য ক্রয় করার জন্য যে অর্থের প্রয়োজন হয় তা যোগাড় করার জন্য তারা নানান খারাপ কাজে তৎপর হয়ে ওঠে। পরিবারের সদস্যদের ওপর চাপ সৃষ্টি করে,চুরি,ডাকাতি ইত্যাদি কাজেও তারা লিপ্ত হয়। আবার পরিবারের সদস্যদের তাদের অর্থের যোগান দিতে গিয়ে অর্থনৈতিক সমস্যায় পড়তে হয়। রাষ্টীয়ভাবে মাদকাসক্ত ব্যক্তি ছাড়াও মাদক ব্যবসায়ীরাও সমস্যার সৃষ্টি করে থাকে। কারণ একজন মাদকাসক্ত ব্যক্তিকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য বিভিন্ন আইন প্রয়োগ করা হয়। তাই তাদের নিয়ন্ত্রণ করা কষ্টসাধ্য। তবে মাদক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রয়ণ করার জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ যত দ্রুত সমÍব গ্রহণ করা উচিত। কারণ এই মহুর্তে মাদকের বিস্তার রোধ করা না গেলে ভবিষ্যতে সেটি আরও সমস্যার সৃষ্টি করবে। এই জন্য সরাকারিভাবে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন । তবে শুধু সরকার নয় বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এই কাজে এগিয়ে আসতে হবে। সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিত্বর সহযোগিতারও প্রয়োজন। তার পাশাপাশি সমাজের প্রতিটি মানুষের এই ক্ষেত্রে সহযোগিতার মনোভাব পোষণ করা উচিত মাদকাসক্ত ব্যক্তিকে নয় বরং মাদকদ্রব্যকে ঘৃণা করা।